ফেব্রুয়ারি ৪, ২০২৩ ৯:১৮ অপরাহ্ণ || শতাব্দীর দৃষ্টিকোণ
আন্তর্জাতিক শিরোনাম

মোদি সরকারের বিরুদ্ধে জিহাদের ডাক মমতার

কেন্দ্রীয় মোদি সরকারের বিরুদ্ধে এবার জিহাদের ডাক দিয়েছেন পশ্চিবাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, কেন্দ্র একদিন নিজেদের কর্মকাণ্ডের জন্য অনুশোচনা করবে। আমরা ওদের ভয় পাই না। বাংলা কোনোদিনও হারতে শেখেনি। বাংলা মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে জানে। গত সোমবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এক সাংবাদিক বৈঠকে কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে ব্যাপক ক্ষোভ উগরে দেন।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কালজয়ী ফিল্ম ‘শোলের’ সংলাপকে পাথেয় করে কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দাগেন। বলেন, ‘জো ডারতা হ্যায় ও মারতা হ্যায়’।

এসময় তিনি মোদি সরকারের একনায়কতন্ত্রের বিরুদ্ধে দেশের সব রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের এককাট্টা হওয়ার আহ্বান জানান। পাশাপাশি দেশের সব আইএএস ও আইপিএসদের একনায়কতন্ত্রের বিরুদ্ধে গর্জে ওঠারও বার্তা দেন।

এসময় মমতা মমতা অভিযোগ করেন, ‘কেন্দ্র ও রাজ্যের মধ্যে একটি লক্ষণ রেখা থাকা উচিত। কিন্ত ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার দেশের যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোর উপরে বুলডোজার চালাচ্ছে।’

মমতা বলেন, ‘দেশের বিভিন্ন ক্ষেত্রে কেন্দ্রের মোদি সরকার ব্যাকফুটে চলে যাওয়ার কারণে সেই ব্যর্থতা থেকে নজর ঘোরাতে এখন রাজ্যগুলোকে টার্গেট করছে মোদি সরকার।’

কেন্দ্রের বিরুদ্ধে আমাদের লড়াই কেউ রুখতে পারবে না বলেও হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন মমতা।

পশ্চিমবাংলা থেকে রাজ্যের মুখ্য সচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে কেন দিল্লিতে তলব করা হলো এমন প্রশ্নও তোলেন মমতা।

রাজনৈতিক মহলের মতে, ভারতে ২০২৪ সালের লোকসভা ভোটের আগাম প্রস্তুতি হিসাবে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এখন থেকেই পিচ তৈরির কাজ শুরু করে দিয়েছেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দল তৃণমূলের তরফে ইতিমধ্যেই বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে ট্রেন্ড হতে শুরু করেছে, বেঙ্গলি প্রাইম মিনিষ্টার। সেক্ষেত্রে, আগামী দিনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে প্রধানমন্ত্রী করার ডাক দেয়া হয়েছে।

ফলে ২০২৪ সালে লোকসভা ভোটকে সামনে রেখে এখন থেকে মমতা ঘর গোছানোর কাজ শুরু করেছেন বলে রাজনৈতিক মহল মনে করছেন।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি ভারতে এক সমীক্ষায় কেন্দ্রের মোদি বিরোধী শিবিরের প্রধানমন্ত্রী পদের দাবিদার হিসাবে দেশের ৪ শতাংশ মানুষ রায় দিয়েছেন।

Similar Posts

error: Content is protected !!