ফেব্রুয়ারি ৪, ২০২৩ ৯:১৯ অপরাহ্ণ || শতাব্দীর দৃষ্টিকোণ
গণমাধ্যম শিরোনাম

‘অফিসিয়াল সিক্রেটস অ্যাক্টে’র মামলায় সাংবাদিক রোজিনা গ্রেপ্তার

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের করা অফিসিয়াল সিক্রেটস অ্যাক্টের মামলায় প্রথম আলোর জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক রোজিনা ইসলামকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে ঢাকার শাহবাগ থানায় একটি মামলা করা হয়েছে, যেখানে ১৮৬০ সালের দণ্ডবিধির ৩৭৯ ও ৪১১ ধারায় চুরি এবং ১৯২৩ সালের ‘অফিসিয়াল সিক্রেটস অ্যাক্টের’ ৩ ও ৫ ধারায় গুপ্তচরবৃত্তি ও রাষ্ট্রীয় গোপন নথি নিজের দখলে রাখার অভিযোগ এনেছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিবের একান্ত সচিব মো. সাইফুল ইসলাম ভূঞার কক্ষে সোমবার দুপুরের পর রোজিনাকে আটক করার পর প্রায় সাড়ে ৫ ঘণ্টা সেখানে তাকে আটকে রাখা হয়। পরে রাত সাড়ে ৮টার দিকে তাকে শাহবাগ থানায় নিয়ে যায় পুলিশ। পরে স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের উপসচিব শিব্বির আহমেদ বাদী হয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন তার বিরুদ্ধে।

মধ্যরাতের দিকে ঢাকা মহানগর পুলিশের রমনা বিভাগের অতিরিক্ত উপ কমিশনার হারুন অর রশিদ সাংবাদিকদের জানান, দণ্ডবিধি ও অফিসিয়াল সিক্রেটস অ্যাক্টে রোজিনার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। তাকে রাতে থানায় রেখে মঙ্গলবার সকালে আদালতে পাঠানো হবে।

এ ঘটনায় বিভিন্ন সামাজিক, রাজনৈতিক ও নারীবাদী সংগঠন এবং সাংবাদিক নেতারা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। তারা রোজিনা ইসলামকে ছেড়ে দেয়ার আহ্বান জানান।

বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের একাংশের সভাপতি এম আব্দুল্লাহ বলেন, ‘রোজিনা ইসলামের সঙ্গে যে আচরণ করা হয়েছে তা ন্যাক্কারজনক। এ ঘটনায় সাংবাদিকেরা উদ্বিগ্ন, ক্ষুব্ধ ও বিস্মিত। স্বাধীন ও অনুসন্ধানী সাংবাদিকতা এবং মুক্ত গণমাধ্যমের প্রতি ধারাবাহিক আক্রোশেরই প্রতিফলন।’

এ দিকে এই ঘটনায় নিন্দা জানিয়ে লিখিত বিবৃতি দিয়েছে কমিটি টু প্রটেক্ট জার্নালিস্ট (সিপিজে), জাতীয় পার্টি, বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ ও আইন ও সালিশ কেন্দ্র।

Similar Posts

error: Content is protected !!