ফেব্রুয়ারি ৪, ২০২৩ ১০:৫৩ অপরাহ্ণ || শতাব্দীর দৃষ্টিকোণ
জাতীয় শিরোনাম

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে হওয়া মামলায় বন্দি অবস্থায় লেখক ও অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট মুশতাক আহমেদের মৃত্যুর প্রতিবাদে ও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিতে আজও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশন। সংগঠনের নেতাকর্মীরা শনিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১১টার দিকে টিএসসির সামনে থেকে মিছিল বের করেন। মিছিলটি শাহবাগ ঘুরে আবার টিএসসির দিকে চলে যায়।

আন্দোলনকারীরা এসময় কারাবন্দি অবস্থায় লেখক মুশতাক আহমেদের মৃত্যুর প্রতিবাদ ও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবি জানান। একইসঙ্গে কার্টুনিস্ট কিশোরের মুক্তির দাবি করেন। এসময় শাহবাগ থানার সামনে পুলিশের সতর্ক অবস্থান দেখা যায়। মিছিলে কেন্দ্রীয় কমিটিসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

কাশিমপুর কারাগারে বন্দি অবস্থায় গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টা ১০ মিনিটে মারা যান ৫৩ বছর বয়সী মুশতাক আহমেদ। ভেতরে হঠাৎ সংজ্ঞা হারিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়লে তাঁকে কারা হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখান থেকে আরো ভালো চিকিৎসার জন্য তাঁকে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক রাত ৮টা ২০ মিনিটে তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। করোনাভাইরাস সংকটের মধ্যে গত বছরের ৬ মে র‌্যাব তাঁকে গ্রেপ্তার করে। তাঁর সঙ্গে কার্টুনিস্ট আহমেদ কবির কিশোরকেও গ্রেপ্তার করা হয়।

পরদিন ‘সরকারবিরোধী প্রচার ও গুজব ছড়ানোর’  অভিযোগে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে তাঁদের বিরুদ্ধে রমনা থানায় মামলা করা হয়। এ মামলায় রাষ্ট্রচিন্তার সংগঠক দিদারুল ভূঁইয়া এবং ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের সাবেক পরিচালক মিনহাজ মান্নানকেও গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। পরে এ দুজন জামিনে মুক্তি পান। মুশতাক ও কিশোরের পক্ষে বেশ কয়েকবার জামিনের আবেদন করা হলেও তা নামঞ্জুর হয়।

গতকাল শুক্রবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) লেখক মুশতাক আহমেদের মৃত্যুর ঘটনায় শাহবাগ মোড় অবরোধ করে বিক্ষোভ করে বামপন্থী ছাত্রসংগঠনগুলো। গতকাল সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি থেকে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে পরীবাগ ঘুরে শাহবাগ মোড়ে অবস্থান নেন কর্মসূচিতে অংশগ্রহণকারীরা। জাতীয় জাদুঘরের সামনে বিকেল ৪টায় মুশতাকের গায়েবানা জানাজার আয়োজন করা হয়। ছাত্র অধিকার পরিষদের আয়োজনে এ জানাজায় ইমামতি করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সাবেক সমাজসেবাবিষয়ক সম্পাদক আখতার হোসেন।

জানাজায় অন্যদের মধ্যে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক আসিফ নজরুল, আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক তানজিম উদ্দিন খান, রাষ্ট্রচিন্তার হাসনাত কাইয়ুম, সাংবাদিক ফারুক ওয়াসিফ, ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর, ছাত্র অধিকার পরিষদের ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক রাশেদ খান অংশ নেন।

লেখক মুশতাক আহমেদের মৃত্যুর জন্য দায়ীদের বিচার চেয়ে গতকাল সন্ধ্যা ৭টার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি থেকে প্রগতিশীল ছাত্রসংগঠনগুলো মশাল মিছিল বের করে। মিছিলটি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে শাহবাগ থানার সামনে গেলে পুলিশ লাঠিপেটা করে মিছিলটি ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

Similar Posts

error: Content is protected !!